কেন টুইটার বর্জন করছেন নারীরা?

  • মাথিন নিউজ ডেস্ক :::::::পুরো হলিউড সরগরম প্রভাবশালী প্রযোজক হার্ভি ওয়াইনস্টিনের যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনা নিয়ে। হার্ভি ওয়াইনস্টিনের কাছে যৌন হয়রানির শিকারের কথা বলে টুইটারে টুইট করেছিলেন এক অভিনেত্রী। এরপরই তার অ্যাকাউন্টটি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয় টুইটার। এরই প্রতিবাদে বিশ্ব জুড়ে অনেক নারী শুক্রবার একদিনের জন্য ঘোষণা দিয়ে নিজেরা টুইটার বর্জন করেন। ওই অভিনেত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট সাময়িকভাবে বন্ধের প্রতিবাদেই অনেকে এ কাজ করেন।

বিবিসি ও জি নিউজের খবরে বলা হয়েছে, হার্ভি ওয়াইনস্টিনের কাছে যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার কথা নিয়ে অভিনেত্রী রোজ ম্যাকগোয়ান টুইটারে একটি টুইট করেন। এরপরই সাময়িকভাবে তার অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেয় টুইটার। এরই প্রতিবাদে বিশ্ব জুড়ে অনেক নারী শুক্রবার ঘোষণা দিয়ে একদিনের জন্য টুইটার বর্জন করেন। তারা এই পদক্ষেপ নিয়েছেন ম্যাকগোয়ানের টুইটার অ্যাকাউন্ট সাময়িক বন্ধের প্রতিবাদ হিসেবে।

এ প্রচার প্রথম শুরু করে গুগলের সাবেক কর্মী এবং সফটওয়্যার প্রকৌশলী কেলি এলিস। তিনি টুইটারে হয়রানির শিকার হওয়ার দাবি করে টুইট করেন। তিনি আগের একটি উদাহরণ টেনে বলেন যে, তার বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগের সত্ত্বেও টুইটার কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। শুরু হয় #WomenBoycott হ্যাশট্যাগ ব্যবহার।

খুদেবার্তার সাইট টুইটার তাঁর অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেওয়ার পর অনেক নারী সংহতি জানিয়ে টুইটার ব্যবহার বন্ধ রাখেন। #WomenBoycott হ্যাশট্যাগটি কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এক লাখ ৯০ হাজারের বেশি বার শেয়ার হয়েছে। যারা টুইটার ব্যবহার না করার ডাক দিয়েছেন তাদের মধ্যে আছেন বিখ্যাত অনেক তারকাও। এদের অনেকে কীভাবে টুইটারে নারী বিদ্বেষী মন্তব্য এবং হয়রানির শিকার হয়েছেন তার উল্লেখ করেছেন।

তবে অনেকে আবার বলছেন যে, এভাবে নারীদের টুইটার বর্জন করে আসলে কোনো লাভই হবে না। নারীদের বরং আরও বেশি করে টুইটারে সরব হওয়া দরকার এই প্রতিবাদ জানাতে।

টুইটার অবশ্য ম্যাকগোয়ানের অ্যাকাউন্ট বন্ধের ব্যাখ্যা দিয়েছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটার বলেছে, তিনি টুইটার অ্যাকাউন্টের শর্তাবলি ভঙ্গ করেছেন। কিন্তু সামাজিক মাধ্যমে অনেকেরই অভিযোগ, হার্ভির মতো প্রভাবশালী লোকের বিরুদ্ধে মুখ খোলায় মাইক্রোব্লগিং ওয়েবসাইট টুইটার রোজ ম্যাকগোয়ানের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*