কানাডায় নেকাব নিষিদ্ধ

জনসেবা প্রদান ও গ্রহণ করতে মুখমণ্ডল ঢেকে রাখা যাবে না নিয়ম করে একটি আইন পাশ করেছে কানাডার এক প্রাদেশিক সরকার। সবার জন্য এ বিধি নিষেধ আরোপ করা হলেও সমালোচকদের মতে মুসলিম নারীদের লক্ষ্য করে এটি করা হয়েছে।

বুধবার কুইবেক ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে ‘বিল সিক্সটি-টু’ নামের এই আইনটি পাশ হয় ৬৬-৫১ ভোটে। ২০১৪ সাল থেকে ক্ষমতায় থাকা লিবারেলরা দুবছর আগেই এই বিলটি উত্থাপন করেছিল।

এই আইনের ফলে কুইবেক প্রদেশে সরকারি সেবা গ্রহণের জন্য বোরকা ও নেকাবধারীরা তাদের চেহারা দেখাতে হবে। এর ফলে এখন থেকে পুলিশ, শিক্ষক, ডাক্তার ও বাস ড্রাইভারসহ প্রশাসনে ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় কর্মরতরা মুখ ঢেকে রাখতে পারবে না ।

আইনটিতে যদিও মুসলিম ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা হয়নি, তারপরও এ আইনের ফলে শিশুদের ধর্মীয় শিক্ষা প্রদানের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের কার্যক্রমও বন্ধ হয়ে যাবে।

সরকার দাবি করছে, সব ধরনের নাগরিকদের জন্য এ আইন করা হয়েছে, নির্দিষ্ট করে মুসলমানদের লক্ষ্যবস্তু করা হয়নি। কিন্তু এ আইনের ফলে সরকারি সেবা গ্রহণ করতে গিয়ে সবচেয়ে বেশি বাঁধাগ্রস্ত হবেন মুসলিম নারীরাই।

কুইবেকে কত নারী নেকাব পড়ে সেই বিষয়ে এখনও স্পষ্ট কোনো তথ্য নেই। তবে ২০১৬ সালের এক জরিপের তথ্য অনুযায়ী- কানাডার ৩ শতাংশ মুসলিম নারী চাদর পরে এবং ৩ শতাংশ নারী নিকাব পরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*