মুসলিম বা খ্রিস্টান বলে কোনো সন্ত্রাসী নেই: দালাইলামা

মুসলিম কিংবা খ্রিস্টান বলে কোনো সন্ত্রাসী নেই। কারণ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়াদের কোনো ধর্ম থাকে না।

ভারতের মণিপুর রাজ্যের ইম্ফলে এক গণঅভ্যর্থনা সভায় তিব্বতের আধ্যাত্মিক ধর্মীয় গুরু দালাইলামা এ মন্তব্য করেন। খবর- এনডিটিভির।

মঙ্গলবার তিনদিনের সফরে মণিপুর যাওয়ার একদিন পর ৮২ বছর বয়সী দালাইলামা এ মন্তব্য করেন।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে ২৫ আগস্টের পর থেকে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর যে নির্যাতন চলছে তিনি সেটাকে অত্যন্ত দুঃখজনক বলেও মন্তব্য করেন।

নির্বাসিত এ ধর্মগুরু বলেন, ধর্ম পালন ও ধর্ম প্রচারের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কখনোই ভালো নয়। ঐতিহাসিকভাবেই ভারত বহু জাতি-ধর্মের দেশ। সে কারণে এখানে আলাদা আলাদা মানুষের আলাদা গোত্র, আলাদা বিশ্বাস রয়েছে। কোনো ধর্মের মানুষেরই অন্যকে প্ররোচিত বা হত্যা করার কোনো অধিকার নেই। যারা করে তারা ভুলের মধ্যে রয়েছেন।

ডোকলাম ইস্যু নিয়ে ভারত-চীন দ্বন্দ্বের ব্যাপারে এ ধর্মীয় নেতা বলেন, ভারত-চীন উভয়ই মহান দেশ। ফলে কাউকে হারানোর ক্ষমতা কারও নেই। সবকিছু মেনে নিয়েই উভয়কে পাশাপাশি বসবাস করতে হবে।

দুই দেশের সীমান্ত এলাকায় বেশকিছু সমস্যা থাকলেও সেগুলো গুরুতর কোনো বিষয় না বলেই মনে করেন দালাইলামা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*