১৮ মাসের শিশুকে ধর্ষণ করলো বাবার বন্ধু!

১৮ মাসের এক শিশু, যে কিনা মাত্র গুটি গুটি পায়ে হাটতে শুরু করে, আধো বুলিতে কথা বলা শুরু করে। দুনিয়া সম্পর্কে তার তখনো কিছুই বোঝার কথা নয়। কে ভালো বা কে খারাপ সেটা তো দূরের কথা। এমন অবুঝ এক শিশু যখন তার বাবারই বন্ধুর ধর্ষণ হয়, তখন সেটাকে আসলে কি বলা যায়, তা বলার ভাষা জানা নেই। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুরে ভারতের দক্ষিণ দিল্লির শাহপুর জাট এলাকায়।

দিল্লি পুলিশ জানায়, সোমবার কাজের সূত্রে শিশুটির মা-বাবা একইসঙ্গে বাড়ির বাইরে গেলে শিশুটির বাবার এক সহকর্মী সন্তোষ রাইয়ের কাছে তাদের ১৮ মাসের কন্যা শিশুকে রেখে যান।

পুলিশকে শিশুটির বাবা জানিয়েছেন, সপ্তাহ দুয়েক ধরেই তাদের অনুপস্থিতিতে মেয়েকে দেখভাল করছে বছর একুশের সন্তোষ। সোমবারও তার কাছেই মেয়েকে ছেড়ে নিশ্চিন্তে ছিলেন তিনি। পৌনে ৩টার দিকে কাজ সেরে বাড়িতে ফিরে আসেন ওই শিশুটির মা। ঘরে ঢুকেই তিনি দেখেন, মেয়ের যৌনাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। সে সময় সন্তোষও বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন। সন্তোষকেই সন্দেহ হয় তার। সঙ্গে সঙ্গে তাকে একটি ঘরে তালাবন্ধ করে আটকে রাখেন শিশুটির মা। এরপর স্বামীকে ফোন করে পুরো বিষয়টি জানান। একই সঙ্গে থানায়ও ফোন করে অভিযোগ করেন তিনি। ঘটনাস্থলে এসে সন্তোষকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পরবর্তীতে শিশুটিকে সফদরজঙ্গ হাসপাতালে নেয়া হয় এবং সেখানেই তাকে টেস্ট করানো হলে দেখা যায়, তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়েছিল।

সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*