এমপি বদির দাবিতে উখিয়া-টেকনাফের মানুষকে প্রধানমন্ত্রী সহায়তার ঘোষনা

উখিয়া-টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের ৫ টি ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ ১৫ হাজার স্থানীয় জনগনকে সরকার সার্বিক সহযোগীতা করবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা। বুধবার বিকেলে জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির দাবির পরিপেক্ষিতে সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান প্রধানমন্ত্রী।
সংসদে প্রশ্নত্তোর পর্বে উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি বলেন, মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে আসা বিপুল পরিমান রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জন্য উখিয়া-টেকনাফের সাধারন মানুষ নানা দুর্ভোগের সম্মুখীন হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের কারনে উখিয়ার রাজাপালং, ফালংখালী, হোয়াইক্যং, হ্নীলা ও বাহারছড়া ইউনিয়নের ১৫ হাজার দরিদ্র মানুষ ক্ষতি গ্রস্থ হয়েছে। রোহিঙ্গাদের কারনে ১৫ হাজার মানুষের জীবিকা নির্বাহ বন্ধ হয়ে গেছে। তাই  ভূক্তভোগী ১৫ হাজার পরিবারকে মাসিক ২০ কেজি করে চাল দেয়ার দাবি জানান এমপি বদি।
এমপি বদির দাবির পরিপেক্ষিতে সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি যে প্রশ্নটি করেছেন তা যৌক্তিক। রোহিঙ্গাদের কারনে উখিয়া ও টেকনাফের অনেক মানুুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। বিশেষ করে দরিদ্র মানুষ যারা বিভিন্ন ভাবে পতিত ও খাস জমিতে চাষাবাদ করে জীবন নির্বাহ করতো তারা বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এই সব মানুষকে সরকার খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি চিকীৎসা সহ অন্যান্য সকল সহযোগীতা প্রদান করবে। রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার ক্ষেত্রে  উদারতা ও সার্বিক সহযোগীতার প্রদানের জন্য উখিয়া-টেকনাফের মানুষকে ধন্যবাদ দেন প্রধানমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*