‘অন্যরা তেল রপ্তানি করবে, ইরান পারবে না তা হবে না: রুহানি”

মাটিন নিউজ ডেক্স:

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, তার দেশ কখনোই বহিঃশক্তির চাপের কাছে নতি স্বীকার করবে না। সোমবার সুইজারল্যান্ড সফরে গিয়ে দেশটিতে বসবাসরত ইরানি নাগরিকদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, “আমরা বিদেশিদের জানিয়ে দিয়েছি যদি তারা ইরানি জনগণের সঙ্গে সম্মান ও যুক্তির ভাষায় কথা বলে তাহলে যেকোনো সমস্যার সমাধান সম্ভব। কিন্তু হুমকি, চাপ ও অবজ্ঞার ভাষায় কথা বললে ইরানিরা তা কোনদিনও মেনে নেবে না।”

ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকার বেরিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, “যুক্তি ও কাণ্ডজ্ঞানহীন একটি দেশ ইরানি জনগণের ওপর চাপ সৃষ্টির লক্ষ্যে পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে বলে এটির ব্যাপারে ইরানের নীতিতে কোনো পরিবর্তন আসবে না।”

মার্কিন সরকার গত মে মাসে ইরানের সঙ্গে ছয় জাতিগোষ্ঠীর স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেছে, আগামী ছয় মাসের মধ্যে তেহরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞাগুলো পুনর্বহাল করা হবে।

এ সম্পর্কে সুইজারল্যান্ড প্রবাসী ইরানি নাগরিকদের সঙ্গে বৈঠকে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, আমেরিকা ইরানের তেল রপ্তানি বন্ধ করে দিতে চায়। কিন্তু ইরানের তেল রপ্তানি বন্ধ করে দিলে মধ্যপ্রাচ্যের অন্য কোনো দেশও তেল বিক্রি করতে পারবে না বলে তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, “এটা হতে পারে না যে, ইরান তেল রপ্তানি করতে পারবে না কিন্তু এ অঞ্চলের অন্য দেশগুলো তা পারবে। যদি আপনারা পারেন তো করে দেখান; তাহলেই এর পরিণতি দেখতে পাবেন।”

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ইউরোপের দু’টি দেশ সুইজারল্যান্ড ও অস্ট্রিয়া সফরের উদ্দেশ্যে সোমবার তেহরান ত্যাগ করেন। পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের পরমাণু আলোচনা ও চুক্তি সইয়ের বেশিরভাগ অনুষ্ঠান এই দুই দেশে সম্পন্ন হয়েছে। রুহানির চলতি সফরে পরমাণু সমঝোতার ভবিষ্যত নিয়ে ইউরোপীয়দের সঙ্গে আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। পার্সটুডে

আমাদের সময়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*